অসাধারণ প্রতিভা তরুণ আলোকচিত্রী সাইফুল রাজু ‘বই মেলায় পাওয়া যাচ্ছে স্বপ্নের প্রতিচ্ছবি’

LaksamDotKom
By LaksamDotKom ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০১৭ ১৯:৪৭

অসাধারণ প্রতিভা তরুণ আলোকচিত্রী সাইফুল রাজু ‘বই মেলায় পাওয়া যাচ্ছে স্বপ্নের প্রতিচ্ছবি’

স্টাফ রিপোর্টার: সাইফুল রাজু নিখুঁত ছবির কারিগর। সৃজনশীল প্রতিভার অধিকারী। সুন্দর আগামীর স্বপ্নে বিভোর। সে একজন খ্যাতিমান আলোকচিত্রী। ক্যামেরার সাথেই তার নিবিড় বন্ধুত্ব। প্রতিটি ক্লিকই তার কাছে কবিতার ছন্দের মতো। রাজনীতিবিদ, সমাজ সেবক, সাংবাদিক, শিল্পী, লেখক সহ খ্যাতনামা ব্যক্তিদের জীবন্ত ছবি তুলে তিনি প্রতিভার উন্মেষ ঘটিয়েছেন। শুধু তাই নয়। তিনি প্রকৃতিকে ভালোবাসেন। সমাজের নিপীড়িত মানুষগুলোর প্রাত্যাহিক দুঃখগাঁথা চিত্র ফুটে উঠে তার ক্যামেরার ক্লিকে। দেশের পর্যটন এলাকা সহ গ্রাম বাংলার চিত্র ক্যামেরার মাধ্যমে ধারণ করে খ্যাতিমান আলোকচিত্রীর খেতাব অর্জন করেছেন। সাইফুল রাজু একজন ভ্রমন পিপাসু আলোকচিত্রী। দেশের একপ্রান্ত থেকে অন্যপ্রান্ত ঘুরে বেড়ানোই তার ইচ্ছা। তাইতো অবসর পেলেই দেশের বিভিন্ন স্থানে পাড়ি জমান। আর যেখানেই তিনি যান সেখানে ক্যামেরা তার নিত্যসঙ্গী।

তার ক্যামেরার নিখুঁত ছবি সবার মনকে আকৃষ্ট করে। বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলার দর্শনীয় ও পর্যটন স্থান, বিভিন্ন শিল্পের শ্রমিক ও তাদের জীবন, নৈসর্গিক প্রকৃতি-জনজীবন, দেশের খ্যাতনামা অপার সৌন্দর্যের হাতছানি এমন বিষয় সম্বলিত হাজার হাজার ছবি তিনি ক্যামেরাবন্ধি করেছেন। তার ছবি তোলার অন্যতম বিষয় হচ্ছে অসহায়, হতদরিদ্র পথ শিশু এবং সৃষ্টিকর্তার অন্যন্য নিদর্শন পাখি।

পাশাপাশি বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের নান্দনিক ছবি ব্যক্তির মননে লুকিয়ে থাকা শিল্পীরতœ জাদুকরী নান্দনিক রেখায় ধরা দিয়েছে। সাইফুল রাজু শুধু প্রকৃতি ও মানুষের ছবি ক্যামেরাবন্ধি করেই যে আনন্দ পান তা নয়। আলোকচিত্রী পেশা যে অনেকটা চ্যালিঞ্জিং তাও মোকাবেলা করে সফল হয়েছেন। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে করে অগ্নিকা- সহ বিভিন্ন প্রাকৃতিক দূর্যোগের ছবি তিনি ক্যামেরাবন্ধি করে দুঃসাহসিকতার পরিচয় দিয়েছেন। শিক্ষা, সংস্কৃতি, প্রকৃতিক নিদর্শণে ভরপুর কুমিল্লার লাকসাম উপজেলায় কেটেছে সাইফুল রাজু’র তার শৈশব।

১৯৯৬ সালের ১৫ জুলাই লাকসাম পৌরসভার গুন্তি গ্রামে তার জন্ম। বাবা মায়ের পাঁচ ছেলে-মেয়ের মধ্যে সে সবার ছোট। বাংলাদেশ কম্পিউটার ইনষ্টিটিউট (বিসিআই)-এ কম্পিউটার সাইন্সে ৬ষ্ঠ সেমিষ্টারে অধ্যয়নরত। ২০১৩ সাল থেকে সাপ্তাহিক সময়ের দর্পণ পত্রিকার মাধ্যমে ফটো সাংবাদিকতা শুরু। এরপর সময়ের দর্পণ ও নকশী বার্তা’র স্টাফ রিপোর্টার ও প্রধান আলোকচিত্রী, কুমিল্লার বার্তা, আলোকচিত্রী দৈনিক প্রতিদিনের সংবাদ, নির্বাহী সম্পাদক সবনিউজ২৪.কম, তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ডিজিটাল বাংলাদেশ ফোরাম, আহবায়ক নতুন প্রজন্ম ফোরাম, কুমিল্লা দক্ষিণ শাখা, সহকারী পরিচালক ফোকাস মিডিয়া বিডিতে বর্তমানে কাজ করছেন এ তরুণ আলোকচিত্রী সাইফুল রাজু। বর্তমানে এই তরুণ আলোকচিত্রী সাইফুল রাজুর স্বপ্নের প্রতিচ্ছবি নামে আলোড়ন সৃষ্টিকারী একটি আলোকচিত্র ম্যাগাজিন একুশে বই মেলায়, মেলা প্রকাশনীর ৫৪৯/৫৫০ নং স্টলে পাওয়া যাচ্ছে। স্বপ্নের প্রতিচ্ছবি বইটি তরুণ এই আলোকচিত্রীর ব্যতিক্রমী প্রকাশনা। দর্শনীয় প্রচ্ছদে বইটিতে স্থান পেয়েছে বেশকিছু দুর্লভ ছবি। যা সব শ্রেণী পেশার মানুষের নজর কাঁড়ে।

৬৫ পৃষ্ঠার বইটির মুল্য নিধারণ করা হয়েছে ২৫০ টাকা। স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সহ যে কেউ মানুষ বইটি কিনে অপরূপ বাংলার দুর্লভ কিছু ছবি ও সমাজের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার জীবনচিত্র দেখার সুযোগ পাবে। সাইফুল রাজু ক্রিড়া ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনের একজন সক্রিয় কর্মী এবং তরুণ নির্মাতা। ইতিমধ্যে তিনি কয়েকটি প্রামাণ্যচিত্র, মিউজিক ভিডিওসহ শর্ট ফিল্ম নির্মাণ করেছেন। লাল সবুজের বাংলাদেশ নামে ক্রিকেটের গান নিয়ে ২০১৬ সালে মিউজিক ভিডিও বের করে ব্যাপক সফলতা পান।

স্বপ্নের প্রতিচ্ছবি আলোকচিত্র বইটি তার প্রথম প্রকাশনা। তরুণ আলোকচিত্রী সাইফুল রাজু জানান- একটা সময় সখের বসে ছবি তুলতাম, এখন ছবি তোলা আমার নেশা। এমন কোন দিন নাই যে আমার ক্যামেরার সাটার ক্লিক হয় না। মিডিয়া অঙ্গনের সবার ছবি তোলার পাশাপাশি প্রকৃতির ছবি তোলার চেষ্টা করি। ছবি তুলতে শহর থেকে প্রত্যন্ত অঞ্চলে ঘুরে বেড়াই। কখনো ছুটে যাই দেশের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে স্বপ্নের প্রতিচ্ছবি তুলতে। আমি সব সময় চেষ্টা করি নিজের ক্যামেরায় মানুষের সুখ-দুঃখগুলো বন্ধী করে রাখতে। ইতিমধ্যে দেশের কয়েকটি জায়গায় ছবির প্রতিযোগিতা ও প্রদর্শনীতে ব্যাপক সফলতা পেয়েছি। আমি সব সময় চেয়েছিলাম আমার সবটুকু চেষ্টা দিয়ে সেরা ছবিটা তুলতে। কতটুকু পেরেছি তা আমি জানি না। তার বিচারের দায়িত্ব আপনাদের হাতে তুলে দিলাম।

(27)

LaksamDotKom
By LaksamDotKom ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০১৭ ১৯:৪৭
Write a comment

No Comments

No Comments Yet!

Let me tell You a sad story ! There are no comments yet, but You can be first one to comment this article.

Write a comment
View comments

Write a comment

Leave a Reply